নিত্য দিনের বর্ষণে জনজীবনে ভোগান্তি

নিত্য দিনের বর্ষণে জনজীবনে ভোগান্তি

- in প্রচ্ছ্দ, সারাদেশ
52
রবিউল করিমঃঈদ শেষ হলেও রাজধানীতে আমেজ ছিল এই কয়দিন। অবশেষে আজ থেকে পুরোদমে শুরু হয়েছে অফিস-আদালত, স্কুল-কলেজসহ সরকারি-বেসরকারী সকল প্রতিষ্ঠানে কার্যক্রম। কিন্তু আজ দুপুরে রাজধানীসহ আশপাশের এলাকায় শুরু হয়েছে বৃষ্টি। কয়েকদিনের গরমের পর হঠাৎ বৃষ্টিতে কিছুটা স্বস্তি এলেও বেড়েছে নগরবাসীর ভোগান্তি। জলাবদ্ধতা ও তীব্র যানজটে কর্মমুখী মানুষ ও স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীদের নাকাল অবস্থা।নগরীর বিভিন্ন সড়ক ও অলিগলিতে পানি জমে সৃষ্টি হয় জলজট। ফলে দেখা দেয় তীব্র যানজট। এতে অফিসগামী মানুষ এবং শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি চরমে পৌঁছে যায়। রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে ঘুরে সরেজমিনে দেখা যায়, অপেক্ষাকৃত নিচু স্থানগুলোতে হাটুপরিমাণ পানি জমে গেছে। সেই পানিতে ভাসছে নোংরা-আবর্জনা। বিশেষ করে নগরীর শান্তিনগর, মালিবাগ, মৌচাক, আরামবাগ, মেরুল বাড্ডা থেকে বাড্ডা, রামপুরা, মিরপুর ও পুরান ঢাকার বিভিন্ন এলাকাসহ বেশ কিছু স্থানে পানি জমে জলজট সৃষ্টি হয়েছে। এতে যানবাহনে ভোগান্তি বেড়েছে। এছাড়া নগরীর অধিকাংশ সড়কের পাশে সিটি কর্পোরেশনের ড্রেন ও ওয়াসার পানির সংযোগ লাইনসহ বিভিন্ন উন্নয়ন সংস্থার কাজ চলায় খোঁড়া গর্তে পানি জমে সড়কের সঙ্গে সমান হয়ে গেছে। এসব গর্তে পড়ে দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছেন অনেকে। এছাড়া মিরপুর, শেওড়াপাড়া, কাজীপাড়া ও আগারগাঁওয়ে মেট্ররেলের খোড়াখুঁড়ির পাশাপাশি রয়েছে জলাবদ্ধতা। দুইয়ে মিলে এসব এলাকায় যানবাহন স্থবির হয়ে পড়েছে। আর এতেই দুর্ভোগের সঙ্গে গাড়িতে মূল্যবান কমঘণ্টা নষ্ট হচ্ছে শ্রমজীবী মানুষের। অন্যদিকে, বৃষ্টির কারণে গণপরিবহনের সংখ্যাও ছিলো কম। আর এই সুযোগে রিকশা, সিএনজি চালিত অটো রিকশাও ভাড়া আদায় করছে ইচ্ছেমতো