নন্দীগ্রামে স্ত্রীর চুল কাটলো পাষন্ড স্বামী

নন্দীগ্রামে স্ত্রীর চুল কাটলো পাষন্ড স্বামী

মো: ফজলুর রহমান,নন্দীগ্রাম(বগুড়া)প্রতিনিধি: গাঁজা কেনার টাকা না দেওয়ায় স্ত্রীর চুল কেটে দিয়েছে পাষন্ড স্বামী। স্ত্রী মাহমুদা খাতুন (২২) কে মারপিট করে কেঁচি দিয়ে তার মাথার চুল কেটে দেন স্বামী উকিল উদ্দিন (২৫)। এ ন্যক্কারজনক ঘটনাটি ঘটেছে গত বুধবার বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলার বুড়ইল ইউনিয়নের চাপিলাপাড়া গ্রামে।
জানা গেছে, উপজেলার সদর ইউনিয়নের গোছন গ্রামের মাহমুদা খাতুনের সাথে ৬ বছর পূর্বে চাপিলাপাড়ার উকিল উদ্দিনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন সময় যৌতুকের দাবীতে স্বামী উকিল স্ত্রীকে মারপিট করতো। একপর্যায়ে গত বুধবার সকালে মাহমুদা বাপের বাড়ী থেকে এক হাজার টাকা ওষুধ কেনার জন্য নিয়ে আসে। পরে রাত ১২ টার দিকে সে টাকা গাঁজা কিনবে বলে স্ত্রীর কাছ থেকে চায়। টাকা না দেওয়ায় স্ত্রীকে মারপিটসহ মুখে বালিস চেপে ধরে কেঁচি দিয়ে চুল কেটে ছোট করে দেয়। ঘটনার পর থেকে স্বামী উকিল উদ্দিন পলাতক রয়েছে বলে জানা গেছে। ইউপি চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ বলেন, স্ত্রীকে স্বামী চুল কেটে দিয়েছে বলে ঘটনাটি শুনেছি। এদের শাস্তি হওয়া প্রয়োজন। এবিষয়ে থানা অফিসার ইনচার্জ(ওসি) আব্দুর রাজ্জাক বলেন, এই ঘটনায় কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এদিকে ঘটনার পর থেকে গা ঢাকা দিয়েছেন অভিযুক্ত উকিল উদ্দিন।