বিদ্যুৎ চুরির শাস্তি ৫ বছরের জেল

বিদ্যুৎ চুরির শাস্তি ৫ বছরের জেল

প্রতিদিনের আলো ডেস্ক : বাসা-বাড়ির জন্য বিদ্যুৎ চুরি করলে ৩ বছর এবং বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে বিদ্যুৎ চুরি করলে ৫ বছরের শাস্তির বিধান রেখে বিদ্যুৎ বিল-২০১৭ পাস করেছে জাতীয় সংসদ।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে মঙ্গলবার সংসদে বিলটি পাস হয়। বিলটি পাসের করার প্রস্তাব করেন বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

এর আগে বিলের ওপর আনীত জনমত যাচাই-বাছাই কমিটিতে প্রেরণ ও সংশোধনীর প্রস্তাব কণ্ঠ ভোটে নাকচ হয়ে যায়।

বিলের অপরাধ ও দণ্ড অধ্যায়ে বলা হয়েছে, আবাসিক ভবন বা অন্য কোনো স্থানে ব্যবহারের জন্য বিদ্যুৎ চুরি করলে ৩ বছরের কারাদণ্ড বা ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দণ্ডিত হবেন। এ ছাড়া কোনো শিল্প ও বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে বিদ্যুৎ চুরি করলে ৫ বছরের কারাদণ্ড বা ৫ লাখ টাকা অর্থদণ্ডের বিধান রাখা হয়েছে।

বিলের উদ্দেশ্য ও কারণ সম্বলিত বিবৃতিতে বলা হয়, দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন অব্যাহত রাখার স্বার্থে বিদ্যুতের ক্রমবর্ধমান চাহিদা পূরণের লক্ষ্যে বিদ্যুৎ উপাদন, সঞ্চালন ও বিতরণ ব্যবস্থার উন্নয়ন ও সংস্কার সাধন এবং মানসম্মত বিদ্যুৎ সেবা নিশ্চিত করার জন্য দি ইলেক্ট্রিসিটি অ্যাক্ট-১৯১০ রহিত করে, তা সংশোধন ও পরিমার্জনক্রমে নতুন আইন আকারে বাংলা ভাষায় বিদ্যুৎ আইন-২০১৭ শীর্ষক বিলটি প্রণয়ন করা হয়েছে।