আবার অভিনয়শিল্পী আফজাল হোসেনের তিন নাটক

আবার অভিনয়শিল্পী আফজাল হোসেনের তিন নাটক

বিনোদন প্রতিবেদক ঃ 

জনপ্রিয় অভিনয়শিল্পী আফজাল হোসেন অভিনয়ে এখন অনিয়মিত। কয়েক বছর ধরে শুধু বড় উৎসবে তাঁর দেখা মিলত। আফজাল ভক্তদের জন্য সুখবর, সামনের ঈদে একসঙ্গে তিনটি নাটকে তাঁকে দেখা যাবে। এর মধ্যে দুটিতে তাঁর সহশিল্পী সুবর্ণা মুস্তাফা আর একটিতে সাদিয়া ইসলাম মৌ। গতকাল মঙ্গলবার পর্যন্ত নাটক তিনটির শুটিং নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন আফজাল হোসেন।এবার ঈদে প্রচারের জন্য আফজাল হোসেন যে তিনটি নাটকে অভিনয় করছেন, সেগুলো হচ্ছে বদরুল আনাম সৌদের ‘অক্ষর থেকে ওঠে আসা মানুষ’, আরিফ খানের ‘নুরুল আলমের বিয়ে’ এবং নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুলের ‘ভ্রম’। প্রথম দুটি নাটকেরই রচয়িতা বদরুল আনাম সৌদ, পরেরটির পান্থ শাহরিয়ার।আফজাল হোসেন বললেন, ‘সুবর্ণা মুস্তাফা ও আমি অন্য রকম দুটি নাটকের কাজ করেছি। এর একটির পরিচালক সৌদ, অন্যটির আরিফ খান। এই দুই নাটকের লেখক সৌদ, তাঁর লেখা আমার ভীষণ পছন্দ। তা ছাড়া এই দুই পরিচালকের নাটকে সঙ্গে আগেও অভিনয় করেছি। তরুণদের মধ্যে যারা খুব ভালো কাজ করে, তাদের সান্নিধ্য ভালো লাগে, তাই তাদের সঙ্গে কাজ করাটা উপভোগ করি। কাজ উপলক্ষে কয়েকটা দিন একসঙ্গে কাটানো হয়। সৌদ আর আরিফ দুজনেই আলাদা কিছু করার চেষ্টা করে, যা আগে তারা করেনি। সেটা আনন্দের।’আফজাল হোসেন বলেন, ‘বড় উৎসবে তিনি নাটকে কাজ করেন। কারণ ব্যবসায়িক ব্যস্ততায় অভিনয়টা তাঁর নিয়মিত করা সম্ভব না। এসব ভেবে নির্মাতারাও বড় উৎসবে নাটকে অভিনয়ের কথা বলে রাখে। যেহেতু ঈদ বড় উৎসব, পরিচালকেরাও চান, তাই এই সময় দু-একটা কাজ করার চেষ্টা করে থাকি।’তিনটি নাটকে অভিনয় করার ক্ষেত্রে সম্পর্কের বাইরেও কিছু বিষয় কাজ করেছে বলে জানান আফজাল হোসেন। বললেন, ‘এবার ঈদের যাঁদের সঙ্গে কাজ করেছি, তাঁদের মোটামুটি আগ্রহ আমাকে দিয়ে কাজ করানোর। সেটা একধরনের শ্রদ্ধাবোধ। আমি একটা কাজ করতে চাই বলে তাঁরা একটা চিত্রনাট্য তৈরি করেন, তখন আমারও মনে হয়, আমাকে করতেই হবে। আমি করতে পারি, তেমন একটা স্ক্রিপ্ট যখন কোনো নির্মাতা নিয়ে আসেন, সেটা একধরনের সম্মান এবং আনন্দের।’