অত্যাধুনিক সমরাস্ত্র প্রদর্শনী করবে রাশিয়া

অত্যাধুনিক সমরাস্ত্র প্রদর্শনী করবে রাশিয়া

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ঃ 

বিজয় দিবসে আজ বুধবার মস্কোর রেড স্কয়ারে নতুন ও অত্যাধুনিক সমরাস্ত্র প্রদর্শনী করবে রাশিয়া। চতুর্থ মেয়াদে ছয় বছরের জন্য ভ্লাদিমির পুতিন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেওয়ার পরই এ সমরাস্ত্র প্রদর্শনীর খবর পাওয়া গেল। এর আগে গত সোমবার শপথ নেওয়ার সময় পুতিন প্রতিজ্ঞা করেন যে রাশিয়াকে আরও শক্তিশালী ও সমৃদ্ধিশালী করা হবে। গোয়েন্দা কর্মকর্তা থেকে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট বনে যাওয়া পুতিন এবার তাঁর সামরাস্ত্র বিশ্বকে দেখাবেন।১৮ বছর ধরে প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ক্ষমতায় থাকা পুতিন ২০২৪ পর্যন্ত রাশিয়া শাসন করবেন। ৬৫ বছর বয়সী পুতিনের সময়কে অনেকেই জারের শাসনামলের সঙ্গে তুলনা করে থাকেন। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে হিটলারের নাৎসি বাহিনীর আত্মসমর্পণের ৭৩তম বার্ষিকীর উদ্‌যাপন উপলক্ষে আজ সামরিক বাহিনীর মহড়ায় সমরাস্ত্র প্রদর্শনী হবে। সিএনএন, তাস ও স্পুতনিক ইন্টারন্যাশনালের খবরে যে অস্ত্রগুলোকে বিশ্ব ওই দিন দেখবে, তার বিবরণ হলোঃ—

১।এসইউ-৫৭ যুদ্ধবিমান ঃ সুখোই এসইউ-৫৭ নামের যুদ্ধবিমান রাশিয়ার নিজস্ব তৈরি। পঞ্চম প্রজন্মের স্টিলথ ফাইটারগুলো ২০১০ সালের প্রথম আকাশে ওড়ে। তবে দুই ইঞ্জিনের এই যুদ্ধবিমানের রাশিয়ার বিমানবাহিনীতে এখনো অভিষেক হয়নি।রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইউরি বারিসভের বরাতে দেশটির সংবাদমাধ্যম তাস বলেছে, এ বছরের ফেব্রুয়ারিতে সিরিয়ায় পর্যবেক্ষণমূলক দুটি এসইউ-৫৭ পাঠানো হয়েছে। এসইউ-৫৭ আনুষ্ঠানিকভাবে কার্যক্রম শুরু করলে এটিই হবে প্রথম পঞ্চম প্রজন্মের যুদ্ধবিমান। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এফ-২২ এবং এফ-৩৫, চীনের জে-২০ ও রাশিয়ার এসইউ-৫৭ একই ধরনের যুদ্ধবিমান।

২।কিনঝাল হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্রঃ রাশিয়ার নতুন হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র কিনঝাল নামে পরিচিত। গত সপ্তাহে সামরিক কুচকাওয়াজে এটি প্রথম দেখানো হয়। এ বছরের ১ মার্চ কিনঝাল হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্রের উদ্বোধন করে ভ্লাদিমির পুতিন বলেন, এটি শব্দের চেয়ে ১০ গুণ গতিসম্পন্ন। অ্যান্টিব্যালাস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের বিরুদ্ধেও এটি অধিক কার্যকর। এ ক্ষেপণাস্ত্র পারমাণবিক বোমা বহনেও সক্ষম। গত সপ্তাহে তাসের এক প্রতিবেদনে প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইউরি বারিসভকে উদ্ধৃত করে বলা বলেন, ‘কিনঝাল হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্রটি দীর্ঘ সীমার ক্ষেপণাস্ত্র, যা বায়ু ও ক্ষেপণাস্ত্রের প্রতিরোধ ক্ষমতা অর্জন করতে সক্ষম। এটি অপরাজেয় এবং যুদ্ধ এবং সম্ভাব্য মোকাবিলা অধিক কার্যকর।