ময়মনসিংহে সড়ক অবরোধ করে হামলা ভাংচুরের ঘটনায় মামলা ৩

ময়মনসিংহে সড়ক অবরোধ করে হামলা ভাংচুরের ঘটনায় মামলা ৩

আনিসুর রহমান ফারুক,ময়মনসিংহ :
ময়মনসিংহ সদর উপজেলার বেলতলী এলাকায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা দুইদিন মহাসড়ক অবরোধ করে হামলা ও ভাংচুর করার ঘটনায় শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে পৃথক ৩ টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ মামলায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রায় ৬ শতাধিক অজ্ঞাত শিক্ষার্থীকে আসামি করা হয় বলে জানা গেছে।
বুধবার (১৬ মে ) বিকেলে কোতোয়ালী মডেল থানার ওসি মাহমুদুল হাসান ও ত্রিশাল থানার ওসি জাকিউর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। পৃথক মামলা ৩ টির মধ্যে কোতোয়ালী থানায় একটি ও ত্রিশাল থানায় দুটি দায়ের করা হয়।
পুলিশ জানায়, মামলায় প্রায় দুই কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতির অভিযোগ করা হয়েছে। এসব মামলায় কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রায় ৬ শতাধিক অজ্ঞাত শিক্ষার্থীদের আসামী করা হয়। মামলার, ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ চলাকালে অর্ধশতাধিক যানবাহন ভাংচুর, ক্ষয়ক্ষতি এবং সংবাদ সংগ্রহ করতে গেলে সাংবাদিকদের রক্তাক্ত আহত, ক্যামেরা, মোবাইল ফোন, মোটর সাইকেল ভাংচুরের অভিযোগে উল্লেখ করা হয়।
পৃথক এই ৩ টির মামলার গুলোর মধ্যে, এটিএন বাংলা এটিএন ও নিউজের ময়মনসিংহ প্রতিনিধি শাহ আলম উজ্জল বাদি হয়ে কোতোয়ালী মডেল থানায় (১৪ মে ) রাতে একটি মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় লক্ষাধিক টাকার ক্ষতির অভিযোগ এনে অজ্ঞাত ২০/২৫ জনকে আসামী করা হয়।
এদিকে ময়মনসিংহ জেলা মটর মালিক সমিতির সহ সভাপতি দীপঙ্কর সাহা বাদি হয়ে কোতোয়ালী মডেল থানায় (১৫ মে) রাতে দায়ের করেছেন। এ মামলায় তিনি অর্ধশতাধিক যানবাহন ভাংচুর ও ক্ষতির অভিযোগে ৫ শতাধিক শিক্ষাথীকে আসামী করেছেন। এছাড়াও ত্রিশাল  মটর শ্রমিক ইউনিয়ের সভাপতি মোকাম্মেল হক বাদি হয়ে, ত্রিশাল থানায় যানবাহন ভাংচুর ও ক্ষয়ক্ষতিতে অর্ধ কোকটি টাকা ক্ষতির অভিযোগ এনে কমপক্ষে অজ্ঞাত  ৬০ শিক্ষার্থীর  বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন।