সাভারে গণমাধ্যম কর্মীকে তুলে নিয়ে যাওয়ার হুমকি

সাভারে গণমাধ্যম কর্মীকে তুলে নিয়ে যাওয়ার হুমকি

- in সারাদেশ
35
নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
আমাদের দেশে বিগত ২৫ বছরে ৩৫ জন সাংবাদিক পেশাগত কারণে হত্যার শিকার হয়েছেন যার মধ্যে দু’একটি বাদে বাকীগুলির এখনো পর্যন্ত কোনো বিচার হয়নি। পেশাগত কারণে এই ঝুঁকিপূর্ণ পেশায় কর্মরতদের জীবনের নিরাপত্তা দিন দিন হ্রাস পেয়ে চলেছে।
ঢাকার সাভারে কর্মরত দৈনিক আগামীর সময়ের সাভার প্রতিনিধিকে ‘তুলে নিয়ে যাবার’ হুমকি দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এব্যাপারে সাভার মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করার কথা জানা গেছে।
সাভার মডেল থানার সাধারণ ডায়েরি সূত্রে জানা গেছে, মোঃ আব্দুস সালাম রুবেল (৪৫), পিতা মৃত-আব্দুল লতিফ, সাং এ-৫২, বিনোদ বাইদ, সাভার এলাকায় বসবাস করেন। তিনি দৈনিক আগামীর সময়ের সাভার প্রতিনিধি। অনুসন্ধানী প্রতিবেদন করতে গিয়ে একটি কোম্পানির ফোন নাম্বার চাওয়ার জন্য তিনি জনৈক শহিদুর রহমান প্রকাশ ভিপি শহিদ (৪৫), পিতা -অজ্ঞাত, সাং ঘোনাপাড়া, থানা সিংগাইর, মানিকগঞ্জ এর মুঠোফোনে ফোন করেন। প্রথমে তিনি ভালোভাবে কথা বলে জানান নাম্বারটি পরে দিবেন। পরবর্তীতে ১৫ জুন, ২০১৮ তারিখে তাকে আবারও কল করা হলে তিনি আব্দুস সালাম রুবেলের মাকে নিয়ে অত্যন্ত জঘন্য ভাষায় গালিগালাজ করেন এবং নিজের রাজনৈতিক প্রভাবের কথা উল্লেখ করে জানান, সাভার এলাকা থেকে তাকে তুলে নিয়ে যাওয়া বলে হুমকি দেন ।
স্বাভাবিক ভাবেই নিজের নিরাপত্তার জন্য এই গণমাধ্যমকর্মী ১৯ জুন (মঙ্গলবার) সাভার মডেল থানায় নিজের জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।
এই অভিযোগের ব্যাপারে অভিযুক্ত শহিদুর রহমানের মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি একটু উত্তেজিত হয়ে ওনার মাকে গালি দিয়েছি, এটা আমার ভুল হয়েছে এবং আমি অনুতপ্ত। তবে তাকে আমি সাভার থেকে তুলে নিয়ে আসবো একথা বলিনি।
এ ব্যাপারে তদন্তকারী কর্মকর্তা সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক প্রাণ কৃষ্ণ অধিকারীর মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এই বিষয়ে তদন্তের অনুমতি চেয়ে আদালতে প্রার্থনা করা হয়েছে এবং বর্তমানে তদন্ত চুছে। তদন্ত শেষে প্রমান পাওয়া গেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে ।
এই বিষয়ে মানিকগঞ্জ-২ সিঙ্গাইর-হরিরামপুর আসনের সাংসদ মমতাজ বেগমকে তাঁর মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন, অভিযোগের ব্যাপারে জানলাম, এ বিষয়ে তাকে জিজ্ঞেস করা হবে।