অপরাধ ও দূর্নীতিঅর্থনীতিআইন-আদালতআন্তর্জাতিকইতিহাস-ঐতিহ্যইসলামকবিতাখেলা-ধুলাখোলা কলামজাতীয়তথ্য-প্রযুক্তিনগর-মহানগরবিনোদনরাজনীতিলাইফ-স্টাইলশিক্ষাসম্পাদকীয়সারাদেশস্বাস্থ্য

বিদেশিদের কাছে না ঘুরে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিন’

মোহাম্মদ নাসিম বিএনপিকে

আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বিএনপি নেতাদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, অহেতুক বিদেশীদের কাছে ঘোরাঘুরি না করে নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি গ্রহণ করুন। বিদেশীদের কাছে ঘোরাঘুরি করে কোনো লাভ হবে না। নির্বাচন হবেই।তিনি বলেন, ‘সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হবে। অহেতুক বিদেশে ঘোরাঘুরি করে কোনো লাভ হবে না। নির্বাচন হবেই। রেজাল্ট যা হয়, আমরা মেনে নেবো। প্রশাসন যখন আছে, মিডিয়া যখন আছে, বিদেশি পর্যবেক্ষকও আসবে। এ দেশে নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করতে যারা ইচ্ছা আসুক। কোনো অসুবিধা নাই।’মোহাম্মদ নাসিম আজ বৃহস্পতিবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরই) এক স্মরণ সভায় প্রধান অতিথি বক্তব্যে এ কথা বলেন। ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি’র সাবেক সভাপতি মোস্তাক হোসেনের স্মরণে এই স্মরণ সভার আয়োজন করা হয়।মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বড় দলগুলো ভিতরে ভিতরে নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত হচ্ছে। নির্বাচন দেশে হবেই। মুখে যে যত কথাই বলুক, বড় দলগুলো মাঠে ময়দানে প্রস্তুতি নিচ্ছে। ভেতরে সবাই প্রস্তুত হচ্ছে, আর বাইরে ফাঁকা আওয়াজ দিচ্ছে। এ আওয়াজ দিচ্ছে , যাতে কিছু আদায় করা যায় কি না।তিনি বলেন, এই নির্বাচনের মাঠে যত বেশি দল আসবে, আসুক, আমরা তাদের স্বাগত জানাই। নির্বাচন কমিশন নির্বাচন পরিচালনা করবে। আজকে তথ্যপ্রযুক্তির যুগ, ইলেকট্রনিক মিডিয়ার যুগ, কেউ কোথাও কিছু করতে পারবে না। এক মুহূর্তে সমস্ত খবর সবার কাছে চলে যাবে। তাহলে কেন আমরা নিজেরা এ হুমকিগুলো দেবো, একজনকে ছাড়া নির্বাচন করতে দেয়া হবে না।বিএনপিকে উদ্দেশ্যে করে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, আপনারা যদি ইলেকশন করতে না চান, ভালো কথা। এর খেসারত আপনাদের দিতে হবে। একবার তো খেসারত দিয়েছেন, আবার দিতে হবে। কিন্তু ইলেকশন বাদ দিয়ে, ইলেকশন ঠেকিয়ে কোনো লাভ হবে না। এ দেশে কেউ কোনোদিন ইলেকশন ঠেকাতে পারেনি। ১৯৭০ সালেও বড় বড় নেতারা স্লোগান দিয়েছিল, কিন্তু বঙ্গবন্ধুর দৃঢ় প্রতিজ্ঞতার কারণে এ দেশে নির্বাচন হয়েছিল। সুতরাং ইলেকশন কেউ ঠেকাতে পারবে না।ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি সাইফুল ইসলামের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ শুক্কুর আলী’র সঞ্চলনায় স্মরণ সভায় সংগঠনের সাবেক সভাপতি শফিকুল করিম সাবু, মাহফজুর রহমান ও সাকাওয়াত হোসেন বাদশা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *