আন্তর্জাতিক

বাংলাদেশের ছাত্র ভুটানের প্রধানমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন !

ডেস্ক রিপোর্ট :

বাংলাদেশের ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাশ করা ডা. লোটে শেরিং ভুটানের প্রধানমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন তিনি মেডিক্যাল কলেজের ১৮ তম ব্যাচের শিক্ষার্থী ছিলেন। এমবিবিএস পাশ করে বাংলাদেশেই জেনারেল সার্জারি বিষয়ে এফসিপিএস করেন। ২০১৩ সালে তিনি সিভিল সার্ভিস থেকে অব্যাহতি নিয়ে রাজনীতিতে যোগদান করেন। এরপর প্রস্তুত দলটির নেতৃত্বে দিতে। গত ১৫ সেপ্টেম্বর ভুটানে অনুষ্ঠিত প্রথম দফা নির্বাচনে তার ডিএনটি দল জয়লাভ করে চমক সৃষ্টি করে। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেরিং তোবগে প্রথম দফার নির্বাচনে হেরে ছিটকে পড়েন। অবশ্য তিনি পরাজয় স্বীকার করে নিয়েছেন। ডা. লোটে শেরিং প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন কজি না চূড়ান্ত জানা যাবে ১৮ অক্টোবর। ভুটানে দুই দফায় ভোট হয়ে থাকে। প্রথম দফায় ভোটাররা রাজনৈতিক দলগুলোকে ভোট দেয়। দ্বিতীয় দফায় অর্থাৎ ডা. লোটে শেরিং মুখোমুখী হবেন ডিপিটি’র ফেনসাম সগবা’র। কিন্তু ইতোমধ্যে বিপুল ভোটে ডা. লোটে শেরিং-এর ডিএনটি জয়ী হয়েছে। ডা. লোটে শেরিং-এর প্রোফাইলে শিক্ষাগত যোগ্যতার স্থানে এমবিবিএস ঢাকা ইউনিভার্সিটি লেখা, ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত। জেনারেল সার্জারিতে এফসিপিএসও করেছেন বাংলাদেশে। যে দুই দল প্রথম ও দ্বিতীয় স্থান পায়, তারা পার্লামেন্টের ৪৭টি আসনে প্রার্থী দেয় এবং তখন দ্বিতীয় দফা ভোট হয়। এবারের প্রথম দফার ভোটে চারটি দল অংশ নেয়। প্রথম দফার মৌলিক নির্বাচনে তিনি বিস্ময়কর সাফল্য পান। রাজীতিতে আসার আগে ডা. লোটে শেরিং জেডিডব্লিউএনআরএইচ এন্ড মঙ্গার রিজিওনাল রেফারেল হসপিটালে কনসালটেন্ট সার্জন হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। জেডিডব্লিউএনআরএইচে তিনি ইউরোলজিস্ট কনসালটেন্ট হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। এরপর ২০১৩ সালে সক্রিয় রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন এবং ২০১৮ সালের শুরুতেই দলএর শীর্ষ পর্যায়ে চলে আসেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *