আন্তর্জাতিক

আংটি বদল প্রেমিকার !

ডেস্ক রিপোর্ট :

মোটামুটি ফাঁকা রাস্তার মাঝখানে দাঁড় করিয়ে রাখা একটি বাইক। পাশেই পড়ে আছে এক তরুণের ‘মৃতদেহ’। পিছনেই একটি বাইক থেকে নেমে দৌড়চ্ছেন দুই যুবতী। পাশ থেকে দৌড়ে আসছেন ট্রাফিক পুলিশের কর্মীরা। তারা যুবতীদের বলছেন, চরমতম পরিণতির জন্য তৈরি থাকতে। দূরে সরিয়ে দিচ্ছেন কান্নায় ভেঙে পড়া যুবতীদের। ঠিক তখনই ঘটল কাণ্ডটি। উপুড় হয়ে পড়ে থাকা যুবকের দেহকে সোজা করতেই




উঠে পড়লেন সেই যুবক। সবাইকে অবাক করে দিয়ে তিনি হাঁটু গেড়ে বসলেন। পকেট থেকে বের করলেন আংটির বাক্স। প্রোপোজ করলেন তার বান্ধবীকে। ‘মৃত’ যুবকের বেঁচে ওঠাই শুধু নয়, এমন রোমান্টিক দৃশ্যের সাক্ষী থেকে হেসে ফেলেন আশপাশের লোকজন। সেই প্রেমিক জুটির প্রেমকে বিয়েতে রূপ দিতে যুবকের অনুরোধে পুলিশও সামিল হয়েছিল এই অভিনয়ে! আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ‘ডেইলি মেইল’ এর




প্রতিবেদন অনুযায়ী, ফিলিপিনসের সাউথ কোটাবাটোতে জেফ্ররি ডেলরিও নামে এই যুবক সড়ক দুর্ঘটনায় ‘মারা’ যাওয়ার অভিনয় করেন শুধু নিজের বান্ধবীর দৃষ্টি আকর্ষণ করতে। এই দৃশ্য নিজের চোখের সামনে দেখে জেফ্ররির বান্ধবী শেলা প্যারায়ানন মানসিক ভাবে বিধ্বস্ত হয়ে পড়েন। যখন ট্রাফ্রিক পুলিশ কর্মীরা তাকে সরিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন, তখনও তিনি বিশ্বাস করতে পারছিলেন না যে তার পর মুহূর্তেই এমন একটা




কাণ্ড ঘটাবেন জেফ্ররি। প্রোপোজ করে বসবেন শেলাকে। কিছুক্ষণ হতবাক হয়ে থাকার পর শেলা অবশ্য জেফ্ররিকে ‘হ্যাঁ’ বলে দেন। আদুরে হাতে তার হাতে মারেন শেলা। তার পরে জড়িয়ে ধরেন তার প্রেমিককে। আর আশপাশের জনতা? তারা তখন মুগ্ধ দৃষ্টিতে দেখছেন এমন অভূতপূর্ব প্রেমময় দৃশ্যটি। শেলা তার পাগল প্রেমিককে যেন ছাড়তেই চাচ্ছেন না। জেফ্ররির এক বন্ধু এই ভিডিওটি ধারণ করে গত ৩০ সেপ্টেম্বর সোশ্যাল সাইটে আপলোডের করে দেওয়ার পর এখন ভাইরাল হয়ে গেছে।

Related Articles