রাজনীতি

মুক্তি দিন খালেদা জিয়াকে

নিজস্ব প্রতিবেদক :

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ্য করে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু বলেছেন, যদি ভালো কিছু চান, যদি রক্ষা পেতে চান তাহলে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিন। জেলে যাওয়ার আগেই তিনি বলেছেন, আপনাদের মাফ করে দিয়েছেন। রোববার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের মিলনায়তনে জিয়া সাংস্কৃতিক সংগঠন (জিসাস) আয়োজিত এক সনদ প্রদান অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। শামসুজ্জামান দুদু বলেন, বেশি কথা বলবো না, আমাদের নেত্রী জেলে, তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে জেলখানায় নেয়া হয়েছে। গতকাল আপনারা লক্ষ্য করেছেন বেগম খালেদা জিয়ার কষ্ট-কৃষ্ট একটি চেহারা। কিসের জন্য তিনি জেলে গেছেন? গণতন্ত্রের জন্য, বাংলাদেশের স্বাধীনতাকে সুরক্ষা করার জন্য তিনি জেলে গেছেন। তিনি বলেন, মিথ্যা মামলার একটা সীমা থাকে, কিন্তু এই লজ্জাহীন সরকারের কোনো লজ্জা নেই, সব কিছু অতিক্রম করেছে।




সেন্ট্রাল ব্যাংক, শেয়ার বাজার, সোনালী ব্যাংক, জনতা ব্যাংক, এমন কোনো অর্থনৈতিক প্রতিষ্ঠান নাই যেটা এই সরকার শেষ করে দেয়নি। তারা যখন বলে দুর্নীতি আর অর্থপাচারকারীরা এই দেশে যদি ক্ষমতায় আসে তাহলে দেশের ভবিষ্যৎ নাই। আমি হাসবো না কাঁদবো। প্রধানমন্ত্রীকে বলি, অর্থপাচারকারী, লুটেরা যদি সরকারে থাকে তাহলে দেশের কোনো ভবিষ্যৎ নাই, আপনার সাথে একমত। কারণ আপনার মতো এত বড় লুটেরা অর্থপাচারকারী বাংলাদেশে আর দ্বিতীয়টা জন্মলাভ করে নাই। সরকারের প্রতি হুঁশিয়ারি দিয়ে ছাত্রদলের সাবেক এই সভাপতি বলেন, দেশনেত্রীকে ছেড়ে দিন, যদি ভালো কিছু চান, যদি রক্ষা পেতে চান। বার বার আপনি এবং আপনার দলের সহকর্মীরা




বলেছেন, সরকার পরিবর্তন হলে, এক লাখ, কেউ বলছেন দুই লাখ, কেউ বলছেন পাঁচ লাখ, কেউ বলছেন ২০ লাখ লোক মারা যাবে। কেন বলছেন মারা যাবে? কি এমন অপরাধ করেছেন আপনারা? দুদু বলেন, শেখ মুজিবের মৃত্যুর পরে যারা ক্ষমতা নিয়েছিল তারা কি ১ লাখ লোক মেরে ফেলেছে? শহীদ জিয়াউর রহমানের মৃত্যুর পরে যারা ক্ষমতায় এসেছিল, তার পরে কি দুই লাখ লোক মারা গিয়েছিল? দেশে এখন যে বাস্তব, ভয়ংকর পরিস্থিতি তৈরি করেছেন, তার থেকে একজন মানুষ আপনাদের উদ্ধার করতে পারেন। তার নাম দেশনেত্রী বেগম খালেদা




জিয়া। তিনি প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে বলেন, নির্বাচনে আপনারাই যেতে চান না, ভালো নির্বাচন আপনি চান না। চান না বলেই নির্বাচনের সকল পক্রিয়ার সমস্ত পথ আপনি বন্ধ করে দিয়েছেন। আমাদের এমন কোনো কর্মী, সমর্থক, নেতা নাই যাদের বিরুদ্ধে মামলা দেওয়া হয় নাই। যার নামে মামলা দিয়ে জেলে নেওয়ার প্রক্রিয়া করা হয় নাই। এটাতো স্বাভাবিক নির্বাচনের পথ না। নেতারা এলাকায় যাবে, যেতে পারছেন না। নির্বাচনী প্রক্রিয়া আপনারা ধবংস করে দিয়েছেন। নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য করে দুদু বলেন, আপনারা মনে মনে তৈরি হোন,পরস্পরের সাথে




যোগাযোগ রক্ষা করেন। ডাক আসবে। সেই ডাকে আমাদের রাস্তায় নামতে হবে। রাজপথ ছাড়া, এই সরকারের মুখোমুখি হওয়া ছাড়া আইন দিয়ে কিছু হবে না। রাস্তায় নামতে হবে। দুদু আরও বলেন, আইনের শাসনের মধ্যে দিয়েই আমরা গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করবো। শেখ হাসিনার অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন হবে, এ কথা পাগল ছাড়া আর কেউ বিশ্বাস করে না। এই শেখ হাসিনার অধীনে আর কোনো নির্বাচন হবে না, হতে দেওয়া হবে না। আয়োজক সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান আবুল হাশেম রানার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান শওকত মাহমুদ, যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

Related Articles