জাতীয়প্রচ্ছ্দসারাদেশ

গাজীপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধন করলেন ৩ প্রকল্প

রবিউল করিম,গাজীপুর প্রতিনিধি :

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে গাজীপুরে তিনটি উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন করেছেন। তিনি বৃহস্পতিবার সকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে শীতলক্ষ্যা নদীর উপর নির্মিত সেতুসহ গাজীপুরের ৩টি প্রকল্পের উদ্বোধন করেন।

গাজীপুর জেলার সিংহশ্রী-বরমী রাস্তায় শীতলক্ষ্যা নদীর উপর নির্মিত সেতু উদ্বোধন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেতুটি উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনের পর সেতুটি সর্বসাধারণের জন্য উম্মুক্ত করে দেয়া হয়েছে। সেতুটি চালু হওয়ায় দুই উপজেলা ছাড়াও পার্শ্ব কিশোরগঞ্জ জেলার মানুষ এ সড়ক দিয়ে সরাসরি শ্রীপুরের মাওনা হয়ে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে মিলিত হতে পারবে। কাপাসিয়ার মানুষ শ্রীপুর হয়ে ময়মনসিংহ যাতায়াত করতে পারবে। ব্যবসা বাণিজ্যসহ এতদঅঞ্চলের মানুষের ভাগ্য উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।




স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের গাজীপুরের নির্বাহী প্রকৌশলী আমিরুল ইসলাম খান জানান, শীতলক্ষ্যা নদী এতদিন দুই উপজেলাকে আলাদা করে রেখেছিল। কাপাসিয়া উপজেলা সদর থেকে সিংহশ্রী খেয়াঘাট এবং শ্রীপুর উপজেলা সদর থেকে বরমী খেয়াঘাট পর্যন্ত পাকা সড়ক থাকলেও দুই উপজেলার মধ্যে সরাসরি সড়ক যোগাযোগ ছিল না। বাধা হয়েছিল শীতলক্ষ্যা নদী। নৌকা ছাড়া বিকল্প ছিল না। ফলে কাপাসিয়ার সিংহশ্রী, রায়েদ, টোকসহ ৮টি ইউপির মানুষকে কোন যানবাহন নিয়ে বা মালামাল নিয়ে শ্রীপুর বা বরমী যেতে হলে কাপাসিয়া সদর হয়ে প্রায় ৩০ কি.মি দুরত্ব ঘুরে যেতে হতো। একই অবস্থা শ্রীপুরবাসীর ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য ছিল।




এ দূর্ভোগ লাঘবের জন্য স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতর, গাজীপুর ২৪ কোটি ৯৭ লাখ টাকা ব্যয়ে সেতুটি নির্মাণ করেছে। সেতুটির দৈর্ঘ্য ৩১৫ মিটার এবং দুইপাশে ১ মিটার করে ফুটপাথসহ সেতুটির প্রস্থ ৮ দশমিক ১ মিটার। এছাড়া উভয়পাশে ৩শ মিটার করে ৬শ মিটার সংযোগ সড়কও নির্মাণ করা হয়েছে। ৯টি পিলার সমৃদ্ধ সেতুটি ২০১১ সালের ২৭ অক্টোবর শুরু হয়ে চলতি বছরের ২০ জানুয়ারি শেষ হয়েছে। সেতুটি চালু হওয়ায় দুই উপজেলাবাসীকে সংযুক্ত করার পাশাপাশি অত্র এলাকার যোগাযোগ ব্যবস্থা ও জীবনমান উন্নয়নে যুগান্তকারী ভূমিকা রাখবে।




এছাড়াও গাজীপুর-২ আসন অন্তর্গত ধীরাশ্রম দাক্ষিণখানে ছয় তলা বিশিষ্ট ০৬ কোটি ৬৫ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ধীরাশ্রম মাতৃসদন কেন্দ্র (হাসপাতাল) ও নিলেরপাড়ায় ২ কোটি ৮৯ লক্ষ টাকা ব্যয়ে তিন তলা বিশিষ্ট হেলথ কেয়ার সেন্টার (হাসপাতাল) শুভ উদ্বোধন করেছেন।




ডিসি কার্যালয়ের নাট মন্দিরে আয়োজিত ভিডিও কনফারেন্স অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন জেলা প্রশাসক ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীর। উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি এমপি, স্থানীয় এমপি জাহিদ আহসান রাসেল, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র অ্যাড. মো. জাহাঙ্গীর আলম, গাজীপুর মহানগর পুলিশের কমিশনার ওয়াই এম বেলালুর রহমান স্থানীয় জনপ্রতিনিধিগণ ও নেতৃবৃন্দ।

Related Articles