মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনায় শেষ হলো ময়মনসিংহে আঞ্চলিক ইজতেমা

মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনায় শেষ হলো ময়মনসিংহে আঞ্চলিক ইজতেমা

আনিসুর রহমান ফারুক, ময়মনসিংহ :
বিশ্ব ইজতেমার অংশ হিসেবে ময়মনসিংহের তাবলীগ জামায়াতের আঞ্চলিক ইজতেমায় সমবেত লাখো মুসল্লির অশ্রুসিক্ত  আখেরী মোনাজাতের মধ্যদিয়ে শেষ হয়েছে। এই ইজতেমায় জেলার লক্ষ লক্ষ মুসল্লী এতে অংশ গ্রহন করেন। আল্লাহর কাছে বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর সুখ,শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা ও গুনাহ থেকে পানাহ চেয়ে মোনাজাতে শরিক হন মুসল্লিরা।মোনাজাত শুরু হতেই লাখো মুসল্লির কলরব মুহুর্তে থেমে যায়।বিস্তীর্ণ এলাকাজুড়ে নেমে আসে নীরবতা। তাঁর সঙ্গে লাখো মুসল্লি দুই হাত তুলে ‘আমিন’ ‘আল্লাহুম্মা আমিন’ধ্বনি তোলেন আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের আশায়।মোনাজাতে সকলের উওোরওর উন্নতি ও সমৃদ্ধির জন্যও দোয়া করা হয়।কাকরাইল মসজিদের মোহাদ্দেস মাওলানা.মো.রবিউল হকের পরিচালনায় শনিবার বেলা ১২টা থেকে শুরু হওয়া টানা ১২টা২০মিনিট পযর্ন্ত মোনাজাতে গুনাহ থেকে পানাহ চেয়ে গগনবিদারী কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন।  তিনদিন ব্যাপী ইজতেমার শেষদিনে দোয়ায় শরিক হতে  লাখো মুসল্লীর ঢল ছিল ইজতেমা ময়দানে। আশপাশের এলাকা ও মহাসড়ক গুলো কানায় কানায় পূর্ণছিল  মুসল্লীদের।
গত বৃহস্পতিবার (২১ ডিসেম্বর ) বাদ ফজরের নামাজ শেষে আমবয়ানের মধ্যদিয়ে ২১, ২২ ও ২৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত তিনদিন ব্যাপী এই জেলার আঞ্চলিক  ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়। পরে শনিবার দুপুরে আখেরী মোনাজাতের মাধ্যমে  ইজতেমা শেষ হয়েছে।
জানা গেছে, এই ময়দানে দেশি বিদেশি ধর্মপ্রান মুসল্লীগণের অংশগ্রহনে একআল্লাহ ও রাসূলের জীবন আদর্শ গঠনের বাস্তব নমুনা চর্চায় মশগুল হয়েছিল ইজতেমায় আগত মুসল্লীরা।
জানা গেছে, প্রথম দিন থেকে শেষ দিন পর্যন্ত বাংলাদেশের  কাকরাইল মসজিদের শীর্ষস্থানীয় মুরুব্বী আলেম ওলামাগণ এ ইজতেমায় বয়ান পেশ করেছেন।
ইজতেমা সফল করতে দিন রাত পরিশ্রম করে মাঠের প্যান্ডেল, অজুখানা, টয়লেট, খুটি নির্মান ও বিদেশি মুসল্লীদের তাবু স্থাপনে স্থানীয় মাদরাসার শিক্ষক শিক্ষার্থী আলেম ওলামা ও ধর্মপ্রাণ মুসল্লীদের স্বেচ্ছায় অংশগ্রহণের মাধ্যমে সম্পন্ন করা হয়ছিল।
অন্যদিকে এবার বধিরদের জন্য আলাদা বয়ান শোনার ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জানায় ইজতেমা আয়োজক কমিটি। বদিরদের ইশারায় অনুবাদ করার ব্যবস্থাও ছিল।
সারা দুনিয়ার মানুষ কিভাবে আল্লাহ ওয়ালা ও ঈমানওয়ালা হয়, জাহান্নাম থেকে রক্ষা পেয়ে যাতে জান্নাতে যেতে পারে, এই লক্ষ্য নিয়ে ময়মনসিংহ আঞ্চলিক ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
এদিকে আখেরী মুনাজাতে অংশ নেন, ময়মনসিংহের জেলা প্রশাসক মোঃ খলিলুর রহমান, পৌর মেয়র ইকরামুল হক টিটু,  র‌্যাব-১৪, ময়মনসিংহ অধিনায়ক লে. কর্ণেল মোঃ শরীফুল ইসলামসহ সাংবাদিক, পেশাজিবী, রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক ও সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দসহ সকল মুসল্লীরা।
উল্লেখ্য, ময়মনসিংহে জেলায় ২০০৩ সালে প্রথম আঞ্চলিক ইজমেতা হয়। এরপর ২০০৮ সালে দ্বিতীয়, ২০১৫ সালে তৃতীয় এবং ২০১৭ সালের ২১,২২ ও ২৩ ডিসেম্বর ৪র্থ জেলা ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়।
টঙ্গীর তুরাগ নদীর তীরে অনুষ্ঠিত বিশ্ব ইজতেমায় ভীড় ও মানুষের কষ্ট কমাতে এ বছর দেশের ৬৪টি জেলার মধ্যে ৩২ জেলা নিয়ে আঞ্চলিক ইজতেমা আয়োজনের ব্যবস্থা গ্রহণ করে তাবলীগ জামাতের শীর্ষস্থানীয় মুরব্বীগণ