স্থানীয়ভাবে উদ্ভাবিত প্রযুক্তির সম্প্রসারণ সেমিনার ডিমলায় তথ্য ও প্রযুক্তি মেলা পরিদর্শনে উপ-সচিব

স্থানীয়ভাবে উদ্ভাবিত প্রযুক্তির সম্প্রসারণ সেমিনার ডিমলায় তথ্য ও প্রযুক্তি মেলা পরিদর্শনে উপ-সচিব

মো: জাহাঙ্গীর আলম রেজা , ডিমলা (নীলফামারী) প্রতিনিধি : গতকাল বিকেলে নীলফামারীর ডিমলায় স্থানীয় ভাবে উদ্ভাবিত লাগসই প্রযুক্তির প্রয়োগ ও সম্প্রসারণ শীর্ষক সেমিনার শেষে উপজেলা পরিষদ মাঠে দুই দিন ব্যাপি তথ্য ও প্রযুক্তি মেলা পরিদর্শন করেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব এ কে এম তারেক। তথ্য ও প্রযুক্তি মেলা পরিদর্শনের পূর্বেই উপজেলা পরিষদ হল রুমে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছা: নাজমুন নাহারের সভাপতিত্বে সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় উপ-সচিব বলেন, লাগসই প্রযুক্তি অর্থেই হচ্ছে স্থানীয় ভাবে উদ্ভাবিত এ প্রযুক্তি যেখানেই লাগানো যায় সেখানেই সয়। ফলে গ্রামঞ্চলে এ লাগসই প্রযুক্তি ব্যবহার করে নানা গবেষণা কাজে লাগানো যায়। তিনি আরো বলেন, এ মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে মেধাবি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীরদের মাঝে বৃত্তি প্রদান করা হয়। যার কারনে এসব মেধাবি ছাত্র-ছাত্রীরা লেখাপড়ায় আরো বেশী মনোযোগী হয়ে দেশের বিভিন্ন ক্যাডার পদে চাকুরী পেতে পারেন। সেমিনারে বিশেষ অতিথি ছিলেন নীলফামারীর স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক মো: আব্দুল মোতালেব সরকার ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা মো: তবিবুল ইসলাম। উপস্থিত ছিলেন উপজেলার বিভিন্ন মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানগণ। এ প্লাইড বোটানী সেকশন বায়োলজিক্যাল রির্সাচ ডিভিশন, ঢাকার বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তারা বলেন, স্পিরুলিনা হলো অতি ক্ষুদ্র নীলাভ সবুজ শৈবাল জাতীয় উদ্ভিদ। যা অনুবীণ যন্দ্র ছাড়া দেখা যায় না। এর মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন , ভিটামিন , লৌহ ও খনিজ পদার্থ সমৃদ্ধ প্রকৃতির আশ্বর্য খাবার স্পিরুলিনা। এরা সাধারণত পানিতে জন্মে।
সেমিনারে আলোচক সিনিয়র বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা, বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণা পরিষদ ঢাকা, মোহাম্মদ শাহরিয়ার বাশার বলেন, টিস্যু কালচার বায়োটেকনোলজির একটি অন্যতম শাখা যার মাধ্যমে নিয়ন্ত্রিত পরিবেশে রোগমুক্ত, মাতৃসদৃশ,অল্প সময়ে অধিক হারে এবং সারা বছর ব্যাপী চারাগাছ উৎপাদন করা যায়। অর্থনৈতিক ভাবে মূল্যবান এবং বিলুপ্ত প্রায় উদ্ভিদের দ্রুত বংশ বিস্তারে টিস্যু কালচার একটি অতি কার্যকরী প্রক্রিয়া। এ প্রক্রিয়ায় বানিজ্যিক ভাবে উৎপাদিত উদ্ভিদ সমূহ নিম পাতা, বেল, থানকুৃনি, স্টেভিয়া, রিক্সা, কদবেল, আপেল, বাসক, ষ্ট্রবেরি,আলু ও সজিনা ।
জ্বালানি গবেষণা ও উন্নয়ন ইনস্টিটিউট ঢাকার আর এক বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা বলেন, জ্বালানি বাঁচান, খরচ বাঁচান, নিজে বাঁচুন, পরিবেশ বাঁচান। তিনি বলেন, মানুষ যত বাড়ছে, দেশে থাকবে না একটিও গাছ। আর এসব গাছ বাঁচানোর একটিই উপায় রান্না করুন উন্নত চুলায়। উন্নত চুলা ব্যবহারে শরীর সুস্থ্য এবং পরিবেশ সুন্দর থাকে। উন্নত চুলায় ধোঁয়া হয় না। উন্নত চুলা ব্যবহার করে অর্ধেকের বেশি জ্বালানি সাশ্রয় সম্ভব। উন্নত চুলা ব্যবহারে কার্বন নিঃসরণ হ্রাস পায়। একটি পরিবারে মাত্র ৪টি গরু বা ২৫০টি হাঁস-মুরগী থাকলেই তিনি অনায়াসে একটি বায়োগ্যাস প্লান্ট বানাতে পারে। বায়োগ্যাস প্রযুক্তি ব্যবহারের ফলে পরিছন্ন জ্বালানি গ্যাস, দুষণমুক্ত পরিবেশ, উন্নত মানের জৈব সার ও স্বাস্থ্যকর পরিছন্ন পরিবেশ। সৌর-শক্তি প্রযুক্তি গবেষণাগারের জ্বালানি গবেষণা ও উন্নয়ন ইনস্টিটিউট ঢাকা, রাজীব বনিক বলেন, বাাংলাদেশে প্রথমবারের মতো সোলার প্যানেল ,সোলার সেল ও সোলার পাওয়ার সিস্টেম ব্যবহৃত যাবতীয় উপাদানের আন্তর্জাতিক মানের পরীক্ষন সেবা প্রদানের সক্ষমতা অর্জন করেছে। এই সক্ষমতা অর্জনের ফলে সরকারের আমদানী নীতি ও অর্থের সুষ্টু ব্যবহার নিশ্চিত করণসহ আমদানীকারক ও ব্যবহারকারীরা এর সুফল ভোগ করতে পারেন।
কাঁচ ও সিরামিক গবেষণা ও পরীক্ষণ ইন্সটিটিউট বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গব্যেষণা পরিষদ বৈজ্ঞানিব কর্মকর্তা সাইফুল কুদ্দুস বলেন, বিশুদ্ধ পানি পান করুন, নিরাপদ থাকুন। অতিবৃষ্টি,বন্যা, ঘুর্নিঝড়, পানির উৎস, সংরক্ষন ও পানির সরবরাহ ত্রুটি, নদী বা পুকুরের পানিতে কাপড় কাচা, গবাদিপশুর গোসল মলমুত্র, ত্যাগ, ময়লা আর্বজনা ফেলা, পুকুর পাড়ে পাতাযুক্ত গাছথাকা। সাধারণ জ্ঞানের অভাব ও পানির উৎসের কাছাকাছি পায়খানা নর্দমা ইত্যাদি থাকায় পানি দূষিত হয়ে পরে। আর দূষিত পানিতে কলেরা, টাইফয়েড, ডায়রিয়া আমাশয়, জন্ডিসসহ বিভিন্ন রোগের জীবানু থাকে। শুধু তাই নয়, দূষিত পানিতে ক্ষতিকর রাসায়নিক দ্রব্য থাকে।
বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গব্যেষণা পরিষদখাদ্য বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ইনষ্টিটিউড বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গব্যেষণা পরিষদ বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা বলেন, সৌর ড্রায়ার ও খাদ্য সংরক্ষন প্রযুক্তি এখন স্থানীয়ভাবে উদ্ভাবিত প্রযুক্তি। বাংলাদেশে বিভিন্ন মৌসুমে প্রচুর পরিমাণে ফলমূল ও শাকসবজি উৎপন্ন হয়। ফলমূল ও শাকসবজি দ্রুত পচনশীল কৃষিজাত দ্রব্য। প্রতিবছর এদেশে উৎপাদিত ফলমূল ও শাকসবজির প্রায় এক-চতুর্থাংশ বিভিন্ন কারনে পচে নষ্ট হয়। সংরক্ষনের মাধ্যমে এ অপচয়ের আংশিক রোধ করা সম্ভব। আর তা সৌর ড্রায়ার এর মাধ্যমে সংরক্ষন করা একেবারেই সহজ উপায়। সেমিনার শেষে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব একেএম তারেক তথ্য ও প্রযুক্তি মেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের স্টলগুলি ঘুরে দেখেন।