বান্দরবানের লামায় রাস্তার বেহাল দশা, ভোগান্তিতে জনগণ

বান্দরবানের লামায় রাস্তার বেহাল দশা, ভোগান্তিতে জনগণ

জাহিদ হাসান,লামা(বান্দরবান)প্রতিনিধি।।

বান্দরবানের লামা উপজেলার একমাত্র বিকল্প সড়ক লামা-রূপসীপাড়া সড়কের সংযুক্ত সাবেক বিলছড়ি হয়ে লাইনঝিরি সড়কটি নদী ভাঙ্গনের কবলে পড়ে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার পথে রয়েছে।রাস্তা ভেঙে চুড়ে এখন বেহাল দশা। হাজার হাজার ছোট-বড় গর্ত তৈরি হয়েছে । লামা উপজেলার সড়কগুলোর অবস্থাও একই। দীর্ঘদিন থেকে সংস্কারের অভাবে ধীরে ধীরে এগুলো পথ যাত্রীদের মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে। প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনা।সাবেক বিলছড়ি প্রতি বছর এই সড়ক দিয়ে লাখো দর্শণার্থী শত বছরের ঐতিহ্যবাহী এক মাত্র দর্শনীয়স্থান ও বৌদ্ধ ধর্মালম্বীদের পবিত্র ধর্মীয় স্থান সাবেক বিলছড়ি বৌদ্ধ বিহার পরিদর্শনে যান। এছাড়াও দেশ-বিদেশের অনেক ভ্রমন পিপাসু মানুষেরা দর্শণীয় স্থানটিতে যাওয়ার একমাত্র মাধ্যম এই সড়কটি। সাবেক বিলছড়ি শিশুসদন এবং সাবেক বিলছড়ি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ২শতাধিক ছাত্র-ছাত্রী এই সড়ক দিয়ে বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়া করে। তাছাড়াও কলিঙ্গাবিল, সাবেক বিলছড়ি, সাবেক বিলছড়ি উপর পাড়া, এবং লামামুখ, লামা সদর ইউনিয়ন, রূপসীপাড়া ইউনিয়ন এবং লামা পৌরসভার অধিকাংশ জনগণ এই সড়কটিকে লামা উপজেলা শহরের বিকল্প প্রধান সড়ক হিসেবে ব্যবহার করে। লামা-লামামুখ হতে লাইনঝিরি হয়ে আলীকদম উপজেলা ও চকরিয়ায় যাতায়াতের এক মাত্র বিকল্প মাধ্যম হচ্ছে লামা-সাবেক বিলছড়ি সড়ক। গর্তের পর গর্তে এ রুটে চলাচলকারী যানবাহনের চালকরাও ত্যক্ত-বিরক্ত।স্থানীয়রা জানায়, সড়কটির তৈরীর পর থেকে সংস্কার করা হয়নি। সড়কের অধিকাংশ জায়গায় ভাঙ্গন রয়েছে। কোথাও কোথাও পাহাড় ভেঙ্গে মাটির স্তুপ হয়ে রয়েছে। মেরামতের অভাবে কলিঙ্গাবিল থেকে লাইনঝিরি পর্যন্ত প্রায় ৫কি.মি. কিলোমিটার রাস্তার বিভিন্ন স্থানে খানা খন্দের কারণে সাধারণ মানুষের চলাচলে চরম দুর্ভোগের সৃষ্টি হয়েছে।রাস্তার অনেক জায়গায় কার্পেটিং উঠে গিয়ে ছোট-খাটো গর্ত সৃষ্টি হওয়ায় যানবাহন চলাচলে চরম কষ্ট সৃষ্টি হচ্ছে। একই অবস্থায় রয়েছে লামা-রাজবাড়ী সড়ক এবং লামামুখ- কুড়ালিয়ারটেক সড়ক। এই সড়কগুলো দীর্ঘদিন সংস্কার না হওয়ায় সাধারণ মানুষের চলাচলে ভোগান্তির শেষ নেই। তাই অনতিবিলম্বে সড়কগুলো মেরামতের জন্য ভুক্তভোগিরা যথাযথ কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।