নাশকতা এড়াতে সাভার-আশুলিয়া আওয়ামীলীগের কঠোর অবস্থান

নাশকতা এড়াতে সাভার-আশুলিয়া আওয়ামীলীগের কঠোর অবস্থান

মোহাম্মদ আব্দুস সালাম রুবেল:
জিয়া অরফানেজ ট্রাষ্ট দূর্নীতি মামলার রায়কে কেন্দ্র করে বিএনপি নেতাকর্মীরা যাতে কোনোপ্রকার নাশকতা সৃষ্টি করতে না পারে সেজন্য সাভার-আশুলিয়ায় আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা কঠোর অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে।
বুধবার(৭ই ফেব্রুয়ারি)সন্ধ্যার পর থেকে বৃহস্পতিবার(৮ই ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা পর্যন্ত তারা সাভার-আশুলিয়ার বিভিন্ন পয়েন্টে শক্ত অবস্থান নেয়।
সাভার ও আশুলিয়ার বিভিন্ন জায়গায় ঢাকা-১৯ আসনের সাংসদ ডা:এনামুর রহমান,সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলী হায়দার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল আলম রাজীব, তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফখরুল আলম সমর, সাভার পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব আব্দুল গণির নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ ও পৌর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক নজরুল ইসলাম মানিক মোল্লা, সাভার উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আতিকুর রহমান আতিক ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা অবস্থান কর্মসূচি নেয়।
এছাড়াও আওয়ামীলীগ কর্মীরা নাশকতা এড়াতে ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মিনহাজ উদ্দিন মোল্লার নেতৃত্বে রেডি কলোনীতে, ফখরুল আলম সমরের নেতৃত্বে রয়েল মার্কেটের সামনে, আলহাজ্ব আব্দুল গণির নেতৃত্বে সিটি সেন্টারের সামনে শক্ত অবস্থান নেয় বলে যায়।
তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফখরুল আলম সমর গতকাল থেকেই তার সাংগঠনিক কার্যক্রম শুরু করেন। এজন্য তিনি সাভারের বিভিন্ন স্থান পরিদর্শনে যান। নাশকতা এড়ানোর জন্য তিনি সাভারের কয়েকটি স্থানে অস্থায়ী ক্যাম্পও বসান বলে জানা যায়। গতকাল রাত থেকেই এ ক্যাম্পগুলোতে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা অবস্থান নেয়।
সাভার উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আলী হায়দার আশুলিয়ায় যেকোন অপ্রীতিকর অবস্থা ও নাশকতা ঠেকাতে কঠোর অবস্থান নেন। তার নেতৃত্বে আশুলিয়ার পাঁচটি ইউনিয়নের প্রায় ২০-২৫ টি পয়েন্টে বৃহস্পতিবার ভোর থেকেই আশুলিয়া থানা ও ইউনিয়ন পর্যায়ের আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দরা অবস্থান কর্মসূচি গ্রহণ করেন। বিএনপি নেতাকর্মীরা যাতে কোনোপ্রকার নাশকতামূলক কর্মকান্ড ঘটাতে না পারে সেজন্য তারা আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সাথে তৎপর আছেন এবং থাকবেন বলেও জানান আলী হায়দার।
এদিকে আওয়ামী লীগের নাশকতা এড়ানোর অবস্থান কর্মসূচিতে উপজেলা, থানা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরাও ব্যাপকভাবে অংশ নেয়। গতকাল রাত থেকেই তারা নির্ধারিত পয়েন্টগুলোতে অবস্থান নেয়। সাভারে রয়েল মার্কেটের সামনে ফখরুল আলম সমরের নেতৃত্বে ছাত্রলীগ নেতা রাজিম ভূঁইয়া মিশু গতকাল রাত থেকে তার দলীয় কর্মীদের নিয়ে অবস্থান নেয় বলে জানা যায়।
এছাড়াও সাভার পৌর যুব মহিলালীগের সভাপতি নাহিদা আফরিন কেয়ার নেতৃত্বে দলের নারী কর্মীরা সিটি সেন্টারের সামনে মিছিল, সমাবেশ ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন।
সাভার-আশুলিয়ার বিভিন্ন জায়গায় আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীদের শক্ত অবস্থান দেখা গেলেও পুলিশ ও বিএনপি নেতাকর্মীদের সেরকমভাবে দেখা যায়নি। খোজ নিয়ে জানা যায়,  বিএনপির অধিকাংশ নেতাকর্মীরা রাজধানী ও দেশের বাইরে অবস্থান করছেন। তাদের অনেকের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও কাউকেই পাওয়া যায়নি।
এদিকে রায় ঘোষণার আগে ও পরে সাভার-আশুলিয়ার কোথাও কোনো সংঘর্ষ হয়নি বলে জানা যায়।