ডিমলায় এসএসসি পরীক্ষার্থী বহিস্কার-২

ডিমলায় এসএসসি পরীক্ষার্থী বহিস্কার-২

মো: জাহাঙ্গীর আলম রেজা,ডিমলা, (নীলফামারী) প্রতিনিধি: নীলফামারীর ডিমলায় শনিবার খগাখড়িবাড়ী দ্বি-মূখী উচ্চ বিদ্যালয় পরীক্ষা কেন্দ্রে গণিত পরীক্ষায় অংশগ্রহনকারী দুই এসএসসি পরীক্ষার্থীকে নকল করার অভিযোগে বহিস্কার করা হয়েছে। জানা যায়, উক্ত পরীক্ষা কেন্দ্রের ১ নং রুমে আদাবাড়ী স্কুল এন্ড কলেজের ছাত্র এসএসসি পরীক্ষার্থী ওয়াছকুরনী আরাফাত আলী বিজ্ঞান বিভাগে গনিত পরীক্ষায় অংশগ্রহন করে পরীক্ষা চলাকালীন নকল করে পরীক্ষা থাকায় প্রশ্ন উত্তর করছিলো। একই পরীক্ষা রুমে অপর এক এসএসসি পরীক্ষার্থীনি নারায়নী দেবী নকল করে পরীক্ষার খাতায় প্রশ্নউত্তর লিখছিলো। এ সময় উক্ত পরীক্ষার রুমে পর্যবেক্ষক ছিলেন হাজি জহরুতুল্লাহ বালিকা উচ্চ বিদালয়ের শিক্ষক মিজানুর রহমান ও মাষ্টারপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক আনারুল হক। পরীক্ষা চলাকালীন পরিদর্শনে গিয়ে মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের একাডেমিক শিক্ষা অফিসার আমীর বোরহান ১২.৫৫ মিনিটে উক্ত পরীক্ষার্থীদের নকল করার অপরাধে বহিস্কার করেন। উক্ত পরীক্ষা কেন্দ্রের কেন্দ্র সচিব ও খগাখড়িবাড়ী দ্বি-উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আমির হোসেন জানান,পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে পরীক্ষার্থীদ্বয় মোবাইল ফোন ব্যাবহার ও হাতে নকল থাকায় তাদেরকে বহিস্কার করা হয়েছে। প্রসঙ্গ, এসএসসি পরীক্ষার শুরুর প্রথম দিকেই ডিমলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছা: নাজমুন নাহার সাংবাদিকদের জানান, যদি কখনও পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে নকলের দায়ে কোন পরীক্ষার্থীকে বহিস্কার করা হয় তাহলে একই সাথে ঐ পরীক্ষার রুমে ডিউটিরত পর্যবেক্ষক শিক্ষককেও শাস্তির আওতায় আনা হবে। কারন হিসাবে তিনি বলেন, পর্যবেক্ষক শিক্ষক থাকাবস্থায় কেন ছাত্র-ছাত্রীরা নকল করবে ? এ জন্য ঐ শিক্ষককে দায় নিতে হবে।