সাভারে এসএসসি পরীক্ষার্থীকে নকলসহ আটক ও আত্মহত্যার চেষ্টা 

সাভারে এসএসসি পরীক্ষার্থীকে নকলসহ আটক ও আত্মহত্যার চেষ্টা 

মোহাম্মদ আব্দুস সালাম (রুবেল) :
সাভারে এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্র থেকে বহিষ্কারের পর জান্নাতুল ফেরদৌস(১৫) নামে এক ছাত্রী আত্মহত্যা করার চেষ্টা করেছে।
মঙ্গলবার(১৩ ই ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টা ৩০ এ সাভারের অধরচন্দ্র স্কুলে এ ঘটনা ঘটে। পরীক্ষার হলে নকল করার অভিযোগে পরিবার পরিকল্পনা অফিসার মেজবাহ উদ্দিন তাকে বহিষ্কার করার কথা বললে সে প্রধান শিক্ষকের কক্ষের সামনে দোতলার বারান্দা থেকে ঝাপ দেয় বলে জানা যায়।
পরীক্ষার কেন্দ্র সচিব রতন পিটার হোমসের সাথে কথা বলে জানা যায়, মেয়েটি পরীক্ষা কেন্দ্রের ৩০৫ নং কক্ষে বসে পরীক্ষা দিচ্ছিল। পরীক্ষার হলে নকল করার অভিযোগে তাকে আটক করা হয়। সে তার হাতে নৈবর্ক্তিক প্রশ্নের উত্তর লিখে এনেছিল।  এব্যাপারে অবহিত করা হলে সে নকল করার অভিযোগে মেয়েটিকে পরীক্ষার হল থেকে বহিষ্কার করে। এরপর মেয়েটি দোতলার বারান্দা থেকে ঝাপ দেয় এবং আত্মহত্যার চেষ্টা করে। এরপর মেয়েটিকে সাভার উপজেলা সরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।
রতন পিটার হোমস আরো বলেন, মেয়েটির বাড়ি কুষ্টিয়ায়। সে তার কুষ্টিয়ার এক বন্ধুর থেকে পরীক্ষার প্রশ্ন পায়। এরপর সে নৈর্বক্তিক অংশের উত্তরগুলো হাতের কনুই থেকে তালু পর্যন্ত লিখে পরীক্ষার হলে আসে। নৈর্বক্তিক প্রশ্ন দেয়ার মাত্র ৫ মিনিটের মধ্যে সে উত্তর লিখে বসে থাকলে হলে দায়িত্বরত শিক্ষকের সন্দেহ হয়। এরপর তাকে নকলসহ জব্দ করা হয়।
এদিকে দোতলা থেকে ঝাপ দেয়ায় ঐ শিক্ষার্থীর কোমর ভেঙ্গে গেছে এবং বাম পায়ের গোড়ালির লিগামেন্ট মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে চিকিৎসক। তাকে চিকিৎসার জন্য ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানা যায়।
জান্নাতুল ফেরদৌস সাভার বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষে এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছিল। সে তার পরিবারের সাথে ব্যাংক কলোনীর ছাপরা মসজিদ এলাকায় বসবাস করে। এব্যাপারে তার মাকে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন আমার মেয়েকে সকাল ১০ ঘটিকার সময় অধর চন্দ্র স্কুলে দিয়ে আসেন কি হয়েছে তিনি কিছুই বলতে পারতেছেন না।