আ’লীগ নেতার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি মামলা ময়মনসিংহে সিএনজি পাম্প ম্যানেজারকে মারপিট

আ’লীগ নেতার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি মামলা ময়মনসিংহে সিএনজি পাম্প ম্যানেজারকে মারপিট

আব্দুল মান্নান পল্টন,ময়মনসিংহ ব্যুরো:
ময়মনসিংহের শহরতলী শম্ভুগঞ্জ বাজার এলাকায় অবস্থিত ‘সারমানো এনার্জি লিমিটেড’ সিএনজি পাম্পের ব্যবস্থাপক আলী আকতার রিপনকে চাঁদা’র দাবিতে সিসি ক্যামেরার মুখ ঘুরিয়ে মারধরের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় সরকার দলীয় তিন নেতার বিরুদ্ধে।

এ ঘটনায় রবিবার দিবাগত রাতে কোতোয়ালি মডেল থানায় চাঁদাবাজির অভিযোগে স্থানীয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের ৩ নেতাকে আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়।

মামলার আসামিরা হলেন- সাবেক ছাত্রলীগ নেতা রয়েল হোসেন, মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা মোক্তার হোসেন ও চরনিলক্ষিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সভাপতি আনোয়ার হোসেন।

মামলার এজাহার সুত্রে জানা যায় গত ১৩ এপ্রিল রাতে এক ১০ হাজার টাকা চাদা দাবি করে মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা মোক্তার হোসেন। চাদা দিতে অস্বীকার করায় ওই দিনই রাত সাড়ে ১০টার দিকে সিএনজি পাম্পে এসে রুমে ঢুকে দরজা বন্ধ করে সিসি ক্যামেরার মুখ ঘুরিয়ে দিয়ে আলী আকতারকে বেধড়ক মারপিট করে।

এসময় চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন দৌঁড়ে এলে পাম্প বন্ধ করে দেওয়ার হুমকি দিয়ে আসামিরা চলে যায়। পরে রক্তান্ত অবস্থায় রিপনকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

সিএনজি পাম্পটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক নূরুল ইসলামের বাড়ি ঝিনাইদহ জেলার শৈলকূপায় এবং পরিচালক লুৎফর রহমানের বাড়ি রাজবাড়ী জেলায়। পরিচালক বা ব্যবস্থাপনা পরিচালক কেউই ময়মনসিংহে থাকেন না বলে জানান ব্যবস্থাপক রিপন।

এ বিষয়ে কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি মাহমুদুল ইসলাম চাঁদাবাজির অভিযোগে মামলা দায়েরের বিষয়টি স্বীকার করে বলেন আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।