নির্মল আনন্দে লাখো মানুষ উচ্ছ্বসিত প্রশংসায় মেয়র টিটু

নির্মল আনন্দে লাখো মানুষ উচ্ছ্বসিত প্রশংসায় মেয়র টিটু

আনিসুর রহমান ফারুক,ময়মনসিংহ :

আবহমান বাংলার প্রাচীন ঐতিহ্য ধরে রেখেছে ঐতিহ্যবাহী ময়মনসিংহ পৌরসভা। টানা ৬ষ্ট বারের মতো এ আয়োজনে লাখো মানুষকে নির্মল আনন্দ উপহার দেয়ায় আমন্তিত অতিথিবৃন্দ ও নগরবাসীর ভূয়সী প্রশংসায় পৌরসভার জনন্দিত মেয়র ইকরামুল হক টিটু।

রোববার (১৫ এপ্রিল) বিকেলে নগরীর ঐতিহাসিক সার্কিট হাউজ ময়দানে বসেছিল প্রায় লাখো মানুষের মিলন মেলা।

টানা ৬ষ্ট বারের মতো এবারো বাংলা নববর্ষকে ঘিরে এ নির্মল বিনোদনের আয়োজন করেন ময়মনসিংহ পৌরসভা’র মেয়র মো: ইকরামুল হক টিটু। এ প্রতিযোগিতাকে ঘিরে এদিন উৎসব আনন্দে মেতে উঠেছিল নগরীর বাসিন্দারা। তাদের বর্ষবরণ উৎসবে যোগ করে নতুন মাত্রা।

আধুনিকতার দাপটে হারিয়ে যাওয়া এ ঐতিহ্য উপভোগ করতে বাড়ির গৃহিণী থেকে শুরু করে জোয়ান-বুড়ো সবাই জড়ো হয়েছিলেন এ মাঠে। মাঠের চতুর্দিক মানুষের ভিড়ে লোকারণ্য হওয়ায় অনেকেই আশপাশের বিভিন্ন ক্লাবের ছাদে আবার অনেকেই গাছের মগডালে উঠে বসেন।

এ ঘোড় দৌড় উৎসবে ময়মনসিংহ বিভাগীয় কমিশনার জিএম সালেহ উদ্দিন ও পুলিশের ময়মনসিংহ রেঞ্জের ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝি গ্রাম-বাংলার হারিয়ে যাওয়া এ ঐতিহ্যের তাঁক লাগানো উপস্থিতি বিমুগ্ধ চিত্তে উপভোগ করেন। লাখো মানুষের মিলনমেলায় উচ্ছ্বসিত হয়ে ওঠেন তাঁরাও।

এর আগে ভিন্নধর্মী এ প্রতিযোগিতার আয়োজক ময়মনসিংহ পৌরসভার মেয়র মো. ইকরামুল হক টিটু লাখো মানুষের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। তিনি বলেন, ‘দেশের সংস্কৃতির ঐতিহ্যময় ঘোড় দৌড় প্রতিযোগিতা আবারো ফিরিয়ে আনা হয়েছে। পুরনো এ ঐতিহ্য ধরে রাখতে আমাদের এ প্রয়াস অব্যাহত থাকবে।’

অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক (ডিসি) ড.সুভাষ চন্দ্র বিশ্বাস ও জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) সৈয়দ নুরুল ইসলামও পৃথকভাবে গ্রামীণ খেলাধূলার এ প্রাচীন ঐতিহ্য ধরে রাখতে ময়মনসিংহ পৌরসভার মেয়র মো: ইকরামুল হক টিটু’র এ আয়োজনের প্রশংসা করেন।

প্রতিযোগিতায় ১ নং দাপট দৌড়ে প্রথম ইলিয়াস আর্মি পেয়েছেন একটি ফ্রিজ। দ্বিতীয় আবুল হাশেম ২১ ইঞ্চি কালার টিভি, তৃতীয় বোরহান ১৪ ইঞ্চি কালার টিভি পুরস্কার পেয়েছেন। ১ নং কদম দৌড়ে প্রথম আজাহার, ২ নং কদম দৌড়ে ইসহাক মেম্বার পুরস্কার হিসেবে পেয়েছেন কালার টিভি। অতিথিরা তাদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।